• রবিবার, ২৯ জানুয়ারি, ২০২৩
Bengal Links

তৃণমূল-বিজেপির সংঘর্ষকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত দিনহাটা

বেঙ্গল লিংকস | নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৪, ২০২২, ১২:১৮ পিএম


তৃণমূল-বিজেপির সংঘর্ষকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত দিনহাটা

আগামী বছরেই রয়েছে পঞ্চায়েত নির্বাচন। আর এই নির্বাচনের সময় দুই বিরোধী দলের গোষ্ঠীকোন্দল সামনে এল। তৃণমূল ও বিজেপির সংঘর্ষে উত্তপ্ত কোচবিহারের দিনহাটা। দুই বিরোধী দলের সংঘর্ষের গুরুতর আহত কমপক্ষে ৫ জন জখম হয়েছে এই ঘটনায়। শনিবার রাতে দিনহাটার আমবাড়ি বাজারে ঘটনাটি ঘটেছে। সেই দিন দিনহাটা নিগম বাজারে উত্তরবঙ্গের উন্নয়নমন্ত্রী উদয়ন গুহের সভা ছিল। এই সভা শেষ করে বাড়ি ফিরছিলেন দুই জন তৃণমূল কর্মী। ওই দুই তৃণমূল কর্মীর নাম নূর ইসলাম মিয়াঁ ও ময়নাল শেখ। এদের উপর হামলা চালানো হয়। যদিও এই হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে বিজেপির উপর।

এই ঘটনায় গুরুতর আহত দুই তৃণমুল কর্মী নূর ইসলাম মিয়াঁ ও ময়নাল শেখকে দিনহাটা মহাকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাদের অবস্থার অবনতি হলে হাসপাতালের চিকিৎসকরা তাদের কোচবিহার এমজেএন মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে রেফার করেন। এই ঘটনায় তৃণমূল বিজেপির বিরুদ্ধে অভিযোগ করে। এরপরই বিজেপির ২৩ নম্বর মন্ডল সভাপতি বিদ্যুৎ কুমার সরকারের  বাড়িতে ভাঙচুর করে। তৃণমূলের কর্মীরা বিদ্যুৎ বাবুর পরিবারের সদস্যদের মারধর করে এমনটাই অভিযোগ করে বিজেপি।

তৃণমূলের ব্লক সভাপতি অনন্ত বর্মন অভিযোগ বলেন, নিগম বাজারে সভা শেষে যখন তাদের দলীয় কর্মীরা বাড়ি ফিরছিল তখন বিজেপি কর্মীরা তাদের উপর আক্রমণ করে। তাদের শারীরিক অবস্থার ভালো নয় বলেও তিনি জানিয়েছেন। অপরদিকে গেরুয়া শিবির তৃণমূলের বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ তুলেছে। বিজেপি নেতা অজয় রায় বলেন, ডায়মন্ড হারবারে শুভেন্দু অধিকারী সভায় বিজেপি কর্মীদের উপর হামলা চালায় তৃণমূল। এই ঘটনার প্রতিবাদ জানাতে আমবাড়িতে কর্মীসভা ছিল। আর সেই সভায় বিজেপি কর্মীদের উপর ও ২৩ নম্বর মণ্ডল সভাপতির বাড়িতে হামলা চালিয়েছে তৃণমূল। যদিও দিনহাটা পুলিশ এই ঘটনার তদন্ত চালাচ্ছে।

রাজ্য থেকে আরও খবর