• রবিবার, ২৯ জানুয়ারি, ২০২৩
Bengal Links

জীবনে ৩০-এর দশক চলাকালীন করা ৫টি সাধারণ অর্থ সম্পর্কিত ভুল এবং সেগুলি কীভাবে ঠিক করা সম্ভব?

বেঙ্গল লিংকস

প্রকাশিত: আগস্ট ৬, ২০২২, ০২:৪৫ পিএম


জীবনে ৩০-এর দশক চলাকালীন করা ৫টি সাধারণ অর্থ সম্পর্কিত ভুল এবং সেগুলি কীভাবে ঠিক করা সম্ভব?

৩০ এর দশক হল জীবনের একটি গুরুত্বপূর্ণ সময়। এই সময় বেশিরভাগ মানুষ সাধারণত স্বনির্ভর ভাবে জীবনযাপন করেন। ২০ বছর বয়সে যে সমস্ত ভুল করা হয় সেগুলি ৩০-এর দশকে সবাই এড়িয়ে চলার চেষ্টা করে। ৩০-এর দশকে আর্থিক ভুল হওয়া সাধারণ। সবচেয়ে বড় বিষয় হল ৩০-এর দশক এখনও যথেষ্ট অল্প বয়স, এই সময় যেকোনো আর্থিক ভুল সংশোধন করা যায়। তাই ৩০-এর দশকে নিজের ভবিষ্যতের জন্য প্রস্তুতি নিলে বয়সকালে নিজের এবং পরিবারের জন্য স্থিতিশীলতা প্রদান করা সম্ভব।  দীর্ঘমেয়াদী আর্থিক স্বাস্থ্যের মূল চাবিকাঠি হল এই সমস্যাগুলির সমাধান করা।

অবসর গ্রহণের সময়ের জন্য সঞ্চয় না করা

জীবনের ৩০-এর দশকে অনেকের মনে হয় অবসরের সময় আসতে এখনও বছর বাকি। এই ধরনের চিন্তা একজন ব্যক্তিকে সঞ্চয় করা থেকে বাধা দিতে পারে। তবে অবসরের গ্রহণের সময়ের জন্য সঞ্চয় করা থেকে ব্যর্থ হলে দীর্ঘমেয়াদে গুরুতরভাবে ক্ষতি হতে পারে। এর সমাধান সহজ, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সঞ্চয় শুরু করা উচিত। যদি কোনো ব্যক্তির নিয়োগকর্তা তার 401(k) অবদানের সঙ্গে মিল রাখার প্রস্তাব দেয়, তাহলে এর সুবিধা নেওয়া উচিত। যদি কোনো ব্যক্তি একজন স্বাধীন ঠিকাদার বা স্ব-নিযুক্ত হয়, তাহলে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব তার একটি অবসর অ্যাকাউন্টে বিনিয়োগ করা শুরু করা উচিত।

ক্রেডিট কার্ডে লোন নেওয়া

ক্রেডিট কার্ড লোন নেওয়া সহজ। এক্সপেরিয়ানের ১২ তম বার্ষিক স্টেট অফ ক্রেডিট রিপোর্ট অনুযায়ী, আমেরিকানদের কাছে গড়ে তিনটি ক্রেডিট কার্ড রয়েছে এবং তাদের মোট বকেয়া ব্যালেন্স ৫৫২৫ ডলার। শৃঙ্খলাবদ্ধ হওয়ার জন্য একটি প্রিপেইড ক্রেডিট কার্ড বেছে নেওয়া উচিত বা এমন জিনিস কেনা উচিত যার জন্য নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী নগদ টাকা দেওয়া সম্ভব৷ 

সম্পত্তিতে বিনিয়োগ না করা

সাধারণত রিয়েল এস্টেট একটি স্মার্ট বিনিয়োগ। ৩০এর দশকে সম্পত্তি কেনার সামর্থ্য থাকলে কিনে নেওয়া উচিত, এটি একটি স্মার্ট বিনিয়োগ হবে। তবে সামর্থ্যের চেয়ে বেশি বড়ো বাড়ি অথবা জমি কিনলে ভালোর চেয়ে বেশি ক্ষতি হতে পারে। এছাড়া এই বাজারে অতিরিক্ত খরচ থেকে সতর্ক থাকা উচিত। 

বাজেট নির্ধারণ না করা

 জীবনের ৩০-এর দশকে থাকার অনেক লাভ আছে।  তবে সমস্যা হল অনেকেই বুঝতে পারে না তাদের সব আয় কোথায় খরচ হয়ে যাচ্ছে। এই জন্য উচিত বাজেট সেট করার জন্য সময় বের করা। কারণ সঞ্চয় এবং  বিনিয়োগ করার জন্য ৩০-এর দশক হল একটি আদর্শ সময়।

জীবন পরিবর্তনের জন্য প্রস্তুতি না নেওয়া

ভবিষ্যতে আসা আর্থিক সংকট সম্পর্কে চিন্তাভাবনা করা এবং তার জন্য আগের থেকে প্রস্তুতি নিলে এই সংকট এড়ানো সম্ভব।  বর্তমানে একটি স্থির বেতন ভবিষ্যতের জন্য নিশ্চয়তা প্রদান করে না। ৩০ বছর বয়সের পরের কয়েক বছর জীবনে কী কী পরিবর্তন ঘটতে পারে এবং কীভাবে সেগুলি আর্থিক অবস্থাকে প্রভাবিত করতে পারে তা বিবেচনা করার দুর্দান্ত সময় হল ৩০ বছর বয়স। ভবিষ্যতে চাকরি হারালে তার জন্য প্রস্তুত থাকা, শিশুদের ভবিষ্যতের উপর এর কোনো প্রভাব যেন না পড়ে তার জন্য প্রস্তুত থাকা, সুস্থ থাকার জন্য  অথবা জরুরী পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে পর্যাপ্তভাবে বীমা করানো। এই সব বিষয়ে আগের থেকেই বিবেচনা করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।